আসালামু আলাইকুম। আজকে এমন একটা বিষয় নিয়ে লিখব ভাবছি যেই বিষয় সবাই কমবেশি জানেন তবে কিছু বিষয় একটু অতিরিক্ত অ্যাড করতে পারবো আপনাদের সামনে এই প্রত্যাশাতে শুরু করছি।আজকে ডোমেইন নিয়ে  কিছু ধারনা দেয়া এই পোস্টের উদ্দেশ্য।

ডোমেইন কি 

ডোমেইন কি তার উদাহরণ এইভাবে বলা যায় আব্দুল কুদ্দুস মিয়া।ডোমেইনকে এক কথায় বলা যায় ডোমেইন হল একটা নাম।সকল জিনিষের যেমন নাম থাকে তেমনি কোন ওয়েবসাইট করলে তার নামকে আমরা ডোমেইন বলে জানি ।এখানে আমাদের ডোমেইন হচ্ছে আব্দুল কুদ্দুস মিয়া।তারমানে আমাদের ওয়েবসাইট এর নাম আব্দুল কুদ্দুস মিয়া।

ডোমেইন

ডোমেইনের কি কি পার্ট থাকে

 

[sociallocker id=”4378″]

জানি আপনি বলতে পারেন নামের এবার কি কি পার্ট থাকতে পারে?জি নামের কিছু পার্ট থাকে ভাই আমাদের ডোমেইন আব্দুল কুদ্দুস মিয়া এর ৩ টা পার্ট আছে

১)কুদ্দুসঃ রুট বা মুল অংশ ।

২)মিয়াঃবরধিত অংশ বা এক্সটেন্সান ।

৩)আব্দুলঃ এটা যে নাম করন করছে তার মেজাজ মর্জি পার্ট বা অংশ যাকে আমরা অপশনাল বলতে পারি ।

এবার আসুন আমরা  এক নাম্বার থেকে তিন নাম্বার পর্যন্ত পয়েন্ট নিয়ে টুকটাক করে জানি ।

রুট বা মুল অংশ

এটি একটি নিখাদ নাম হবে যাদ্বারা কোন কিছু এর নাম বুঝাবে যেমন আপনাকে কুদ্দুস বললে বুঝবেন যে কুদ্দুস একজন মানুষের নাম ।এটি নামের মুল পার্ট এটিকে রুট বলা হয় ডোমেইন এর ।যেমনঃ facebook,google,Microsoft,youtubeইত্যাদি।

বর্ধিত অংশ বা এক্সটেন্সান

এটাকে এইভাবে বলা যায় এটা একটা বংশ  পদবী আপনি মিয়া হইতে পারতেন কাজী হইতে পারতেন সৈয়দ হইতে পারতেন, হতে পারতেন পাল,হতে পারতেন গমেজ। যেমন আমাদের এখানে মিয়াঃবর্ধিত অংশ বা এক্সটেন্সান ।বর্ধিত অংশ লিখবার আগে সবসময় একটি ডট (.) চিনহ বসে। যেমনঃ .com, .net, .org , .tv , .xyz ইত্যাদি।

আব্দুলঃ

আগেই বলেছি এটা যে নাম করন করছে তার মেজাজ মর্জি  পার্ট বা অংশ যাকে আমরা অপশনাল বলতে পারি ।চাইলে যিনি নাম রাখছেন তিনি মোহাম্মাদ রাখতে পারতেন,পারতেন অন্য কিছু যোগ করতে বা কিছু যোগ নাও করতে পারতেন এটাকে তাই অপশনাল পার্ট বলা হয় ।যেমন এখানে আমাদের আব্দুল আছে।

তবে আমরা সাধারণত www দেখে থাকি।একে সাব ডোমেইন বলা হয়ে থাকে।লিখবার পরে সবসময় একটি ডট (.) চিনহ বসে।

যেমনঃ www., seo.,smm.,sem.ইত্যাদি যেন কিছু হতে পারে ।

এবার আসুন তবে আমাদের ডোমেইন টাকে সাজিয়ে ঠিক করে লিখে ফেলি আব্দুল.কুদ্দুস.মিয়া।

আসুন এবার ডোমেইন এর সাথে সম্পর্কিত কিছু বিষয় আশয়ের সাথে পরিচিত হই ।

 

রুট ডোমেইনঃসাব ডোমেইন কে বাদ দিলে যা থাকে তাই রুট ডোমেইন ।যেমন আমাদের রুট ডোমেইন কুদ্দুস.মিয়া।

আমরা এই ভাবে রুট ডোমেইনকে সাজিয়ে বলতে পারি রুট পার্ট ও এক্সটেন্সান মিলে রুত ডোমেইন গঠিত হয়। জেমনঃ facebook.com, google.com, youtube.com  ইত্যাদি ।

সাব ডোমেইন: রুট ডোমেইনকে বাদ দিয়ে যা পাবেন তাই আপনার সাব ডোমেইন।যেমন আমাদের এখানে সাব ডোমেইন আব্দুল।

সাব ডোমেইন সহ কিছু সাইটের নামঃ www.facebook.com, www.google.com, www.youtube.comইত্যাদি ।

এক্সপায়ারড ডোমেইনঃ এটি সবাই কমবেশি সবাই শুনে থাকবেন এক্সপায়ারড ডোমেইন নিয়ে। আসুন এটাকে অন্নও ভাবে বলি আব্দুল কুদ্দুস মারা গেল তারপর তার ছেলের ঘরের ছেলের ঘরের ছেলে হইল তার নাম ও রাখা হল আব্দুল.কুদ্দুস.মিয়া এই নাম রাখাকে আমরা বলতে পারি এক্সপায়ারড ডোমেইন ।আসুন এবার ভাবি আমি একটা সাইট বানালাম ১ বছর কাজ করার পর আমি আর এই ডোমেইন কে রি রেজিসটেসন করলাম না তখন কেউ যদি আমার ডোমেইন টা কিনে নেয় তবে যে কিনবে সে এক্সপায়ারড ডোমেইন কিনেছে ।

Top-level domain (TLD):TLDবলতে বুজায় ডোমেইন এর শেষ পার্ট টুকু যেমন .মিয়া আমাদের TLD।চলুন কিছু TLD জানি

যেমনঃ Country-code top-level domains (ccTLD):.bd, .us, .inইত্যাদি

Sponsored top-level domains (sTLD): .org   আমার জানামতে একটাই আছে।

Generic top-level domains (gTLD): কিছু উধারন  “com” for “commercial” ,”edu” for “educational” “org ” for “organization”, “info” for “information” ইত্যাদি ।

[/sociallocker]

চাইলে আপনি যে কোন TLD  ইউস  করতে পারেন তবে আপনার সংশ্লিষ্ট TLD  নেয়াটাই ভাল যদি ও এটা নিয়ে বিভক্তি আছে মার্কেটার দের মাঝে । সবাটাই বললাম TLD নিয়ে এটাকে দেয় জানবেন না the Internet Corporation for Assigned Names and Numbers (ICANN).

লিখতে লিখতে খেয়াল করিনি ডোমেইন এই পার্টটা পুরাই লম্বা হইয়া গেছে পরের পর্বে বাকিটা লিখবো ইনশাল্লাহ। আর ডোমেইন নিয়ে কিছু জানার থাকলে কমেন্টে লিখুন  পরের পর্বে আমি আপনাদের জানাতে চেষ্টা করবো http,Https,Exact match Domain, Brandable Domain  ও অ্যাফিলিয়েট সাইট এর জন্য কেমন ডোমেইন বাছাই করবেন। সবাই ভাল থাকুন।  happy learning .

 

 

 

Comments

comments